পার্বত্য চট্টগ্রামকে দুর্গত ঘোষণার দাবি বিএনপির

ভূমিধসের ঘটনার পর পার্বত্য চট্টগ্রামকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করে রাষ্ট্রীয় শোক দিবস পালনের দাবি জানালেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সোমবার রাজধানীর গুলশানের ইমানুয়েল সেন্টারে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস) আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এ দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা যখন এখানে ইফতার করছি, তখন পাহাড়ি অঞ্চলে আমাদের ভাই-বোনেরা খুব কষ্টে আছেন। তাদের ঘর-বাড়ি ভেঙে পড়ছে, আত্মীয়-স্বজনরা মারা গেছেন।

তিনি বলেন, ভূমিধসে ১৭০’র মতো মানুষ মারা গেছেন। তারপরও দুঃখজনকভাবে সরকার রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেনি। এখনো ওই অঞ্চলটিকে উপদ্রুত এলাকা ঘোষণা করেনি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি এখন এমন একটা জায়গায় চলে গেছে, সেখানে দেশের মৌলিকত্ব চলে যাবার উপক্রম হয়েছে। গণতন্ত্রহীন ও অধিকারহীন অবস্থার মধ্যে দেশ চলছে।

তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যাশা থাকবে জাসাস এই সংস্কৃতিকে ধারণ করে তারা সত্যিকার অর্থেই দেশের মানুষের প্রকৃতি, কৃষ্টি ও সংস্কৃতি চর্চা করবেন। দেশের মানুষের মাঝে তা ছড়িয়ে দেবেন।

এ সময় জাসাস সভাপতি অধ্যাপক মামুন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক হেলাল খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য গাজী মাজহারুল আনোয়ার, আবদুস সালাম, তাহমিনা রুশদীর লুনা, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, জাসাস সহ-সভাপতি ও বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান উপস্থিত ছিলেন।

কে/ওয়াই

[খবরটি এখান থেকে এসেছে]

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*