সিরিয়ায় ৬৫ জঙ্গি নিহত ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায়

  সিরিয়ায় সন্ত্রাসী গোষ্ঠি দায়েশের ঘাঁটিতে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর ক্ষেপনাস্ত্র হামলায় আরও অন্তত ১৫ সন্ত্রাসী নিহত হবার খবর পাওয়া গেছে। সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দেইর আয-যোর শের আলমুহাসান শহরের দায়েশ ঘাঁটিতে একটি ক্ষেপনাস্ত্র আঘাত হানার ঘটনায় ওই ১৫ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।  

এ নিয়ে দুটি ক্ষেপনাস্ত্রের আঘাতে ৬৫ দায়েশ সন্ত্রাসী নিহত হবার খবর নিশ্চিত করা হলো। নিহতদের মধ্যে দায়েশের বেশ কয়েকজন কমান্ডার রয়েছে।বিপ্লবী গার্ড বাহিনী সিরিয়ায় দায়েশ সন্ত্রাসীদের বিভিন্ন স্থাপনায় মোট ছয়টি ক্ষেপনাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। প্রতিটি ক্ষেপনাস্ত্রই সঠিকভাবে লক্ষ্যভেদ করেছে। দুটি ক্ষেপনাস্ত্রের ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে জানা গেলেও বাকি চারটি ক্ষেপনাস্ত্রের ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে এখনো জানা যায় নি।

গতরাতেও প্রত্যক্ষদর্শিদের বরাত দিয়ে ইরানের আলআলম টিভি জানিয়েছে, দেইর আয-যোরের আলমায়াদিন শহরে সন্ত্রাসী গোষ্ঠি দায়েশের কমান্ডারদের একটি ঘাঁটিতে বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর একটি ক্ষেপনাস্ত্র আঘাত হেনেছে। ওই ক্ষেপনাস্ত্র হামলায় পঞ্চাশেরও বেশি দায়েশ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

ইরাকের আকাশ পেরিয়ে ৬৫০ কিলোমিটার দূরের ওইসব ঘাঁটিতে রোববার রাতে ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর ক্ষেপনাস্ত্রগুলো সঠিক লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে।গত ৭ জুন তেহরানে দায়েশের সন্ত্রাসী হামলায় ১৮ জন শহীদ হয়। ওই হামলার প্রতিশোধ নিতেই বিপ্লবী গার্ড বাহিনী দায়েশের ঘাঁটিতে হামলা চালায়। ওই হামলার ঘটনায় বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বলেছিল, শহীদদের পবিত্র রক্তের যথাযথ বদলা নেয়া হবে।

 

 

[খবরটি এখান থেকে এসেছে]

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*